যে কোনো সময় লেখা পোস্ট করা যায় । লিঙ্ক - https://webtostory.com/to-post-the-text/

সুতপা ব‍্যানার্জী(রায়)

 


সুতনুকার স্বপ্ন ও বাস্তব

কলমে-সুতপা ব্যানার্জী(রায়)
সুতনুকা স্বপ্ন দেখে-
“আচ্ছা সত্যিই কি অচিনপুরের রাজপুত্র হয়?
ঘোড়ায় চড়ে টগবগ টগবগ করে আসে?
রাজকন্যাকে ভালোবাসায় ভাসিয়ে নিয়ে যায়?”
যদি তার ক্ষেত্রেও এমনটা হোত, ভয় করত তার,
লীনারা গড়িয়ে পড়ে হেসে ওর কথা শুনে,
এসব স্বপ্ন নাকি কেউ আর দেখে না,
রাজপুত্র তোমায় উদ্ধার করবে কেন?
তুমি নিজেই নিজেকে উদ্ধার কর, সাবলম্বী হও,
ওসব ন্যাকা ন্যাকা স্বপ্নের দিন শেষ,
মুখের ওপর মুখ বেঁকিয়ে বলে গিয়েছিল দিয়া,
তবুও সুতনুকা স্বপ্ন দেখে ঘোড়ায় চড়া রাজকুমারের,
মুখটা বড় চেনা চেনা, অনেকটা ধ্রুব-র মতো।
সুতনুকর স্বপ্ন ভাঙে-
“না না না, তোমায় আমি ভালোবাসি না,
দেখেছো আয়নায় নিজের মুখ,
মনে কর এই হ্যান্ডসাম ধ্রুব রায়ের যোগ্য তুমি?”
অপলক চেয়ে থাকে সুতনুকা…ঘোড়াটা মিলিয়ে যাচ্ছে,
রাজকুমারের মুখটা আরও অস্পষ্ট,
লীনা… লীনা হা হা হা করে হাসছে,
দিয়া মুখ বেঁকিয়ে বলছে-“ঠিক হয়েছে”
ঘুমের মধ্যে উঠে বসে সুতনুকা,
ভোর..ওই তো ভোর হয়ে এসেছে,
দিয়ে গেল তাকে স্বপ্ন ভাঙার স্বপ্ন।
সুতনুকার বাস্তব…..
“হয় না হয় না…ও ভাবে হয় না,
কবে তোমার স্বপ্নের জন তোমার সামনে হাজির
হবে সেই ভরসায় আমরা বসে থাকতে পারি না..”
সোজাসুজি স্পষ্ট কথায় মোহ ভাঙিয়েছিল মা,
ছোট বোনের সামনে বাধার প্রাচীর হওয়া-স্বার্থপরতা,
“কিন্তু মা, ওরা নগদ চায় সাথে গা ভরা অলঙ্কার”
অপরাধ তো কিছু নয়, শ্যামলা তুমি এটুকু সামান্য,
বড় ব্যবসা, সুখেই থাকবে, কল্পনা ছাড়ো,
বাস্তবে পা রাখো…. ওই তো ওই পা ডুবে আছে
দুধে আলতায় শ্বশুরবাড়ির দরজায়,
সুতনুকার ডাগর চোখের সামনে সূর্য্য ডোবে পাটে।

Post a Comment