যে কোনো সময় লেখা পোস্ট করা যায় । লিঙ্ক - https://webtostory.com/to-post-the-text/

হিমেল বাতাসের সুঘ্রাণে আমি নির্বাক হয়ে গিয়েছিলাম

অনেকক্ষণ অপেক্ষা করার পর মাধবীলতা দুহাত বাড়িয়ে দিয়ে কী যেন বলতে চেয়েছিলো- গভীর নিঃশ্বাসে কেঁপে উঠে ছিল বুক তবুও আমি তাকে ছুঁতে পারিনি ঐ বয়সে

 

অমিতাভ মুখোপাধ্যায়


কোজাগরী 

অমিতাভ মুখোপাধ্যায় 


মাধবীলতার গল্পটা কাউকে বলা হয় নি 

এই কোজাগরী পূর্ণিমার রাতে 

মাধবীলতার সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিল 


সে অনেক দিন আগেকার কথা 

তখন আমার কিশোর বেলা 

পূর্ণিমার আলোয় ভেসে গিয়ে ছিল 

ভুবন ডাঙ্গার মাঠ -

এতো আলো কোনদিন চোখে পড়ে নি 

মাঠ ছিল নিকানো উঠানের মতো উজ্জ্বল 

সময় ছিল স্বপ্ন সন্ধানী 


সেদিন অদূরে দাঁড়িয়ে ছিল মাধবীলতা 

হাতে ছিল পূজার উপাচার 

বন জ্যোৎস্নার আবেশে 

হিমেল বাতাসের সুঘ্রাণে 

আমি নির্বাক হয়ে গিয়েছিলাম 

মনের কথাটা মনেই থেকে গিয়েছিল 

মাধবীলতাকে আর বলা হয় নি 


অনেকক্ষণ অপেক্ষা করার পর 

মাধবীলতা দুহাত বাড়িয়ে দিয়ে

কী যেন বলতে চেয়েছিলো-

 গভীর নিঃশ্বাসে কেঁপে উঠে ছিল বুক 

তবুও আমি তাকে ছুঁতে পারিনি 

ঐ বয়সে পুরুষরা বোধহয় ভীরু

 বা কাপুরুষই হয় !

 

মাধবীলতা আর কোন দিন আমার 

দিকে ফিরেও তাকায় নি 

যেদিন ফুলের ঘ্রাণ  নেবার বয়স হলো 

মাধবীলতা তখন আমার জীবন থেকে 

 ঝরে গেছে ---


এখনও প্রতি কোজাগরী পূর্ণিমায় 

মাধবীলতার কথা মনে পড়ে 

তাকে দেখতে চাইলেও আর দেখতে 

পাই না -

ছুঁতে চাইলেও আর ছুঁতে পারি না 

মনে হয় সব কল্পকথা 


সেই ভুবনডাঙ্গার মাঠও আজ আর নেই 


জানিনা কোন কাননের ফুল হয়ে 

সে আজ ফুটে আছে------

কিংবা নেই 


সেও বোধহয় জানে 

আর কোন কোজাগরী পূর্ণিমায় 

কেউ তার জন্যে অপেক্ষা করে নেই -থাকবেও না 


শুধু সেই নিষ্পাপ সময়টা 

থমকে দাঁড়িয়ে আছে l

Post a Comment