যে কোনো সময় লেখা পোস্ট করা যায় । লিঙ্ক - https://webtostory.com/to-post-the-text/

হাইপ(Hype) শব্দটির অর্থ প্রতারণা করা বা চাতুরী করা।

শংকর ব্রহ্ম - হাইপ (Hype) কবিতা কি? হাইপ(Hype) শব্দটির অর্থ প্রতারণা করা বা চাতুরী করা। কবি এখানে শব্দের সঙ্গে ভাবের চাতুরী করেন । পাঠক অনেক সময় এই ক

 

শংকর ব্রহ্ম


এক ডজন হাইপ(Hype) কবিতা

শংকর ব্রহ্ম

 হাইপ (Hype) কবিতা কি?


হাইপ(Hype) শব্দটির অর্থ প্রতারণা করা বা চাতুরী করা। কবি এখানে শব্দের সঙ্গে ভাবের চাতুরী করেন । পাঠক অনেক সময় এই কুহকে পড়ে, নিজস্ব ভাবনার অবকাশ পান। এইসব কবিতায় কখনও রূপকের আড়ালে, - অযৌক্তিক/কিম্ভুতকিমাকার/হাস্যকর/অদ্ভুত/ অসম্ভব অর্থহীন ভাবের প্রকাশ ঘটে।


           এই ধরণের কবিতা-চর্চা সামান্য হলেও, তেমনভাবে বিস্তার লাভ করেনি। এই ধরণের চর্চার এক অসামান্য মাষ্টার-স্পীচ ' আবেল তাবল' সুকুমার রায়ের। তিনি ছাড়াও এ ধরণের লেখার চর্চা করেছেন যোগীন্দ্রনাথ সরকার, দাদা ঠাকুর ( শরৎ চন্দ্র চক্রবর্তী) প্রমুখেরা। ]



 #শংকর_ব্রহ্মর_এক_ডজন_হাইপ_কবিতা


কবিতা


হাইপ-এক                  

শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°


শব্দের ভিতরে সুর

                    খুঁজে ছিল যেন অন্ধ এক

        আর তাতে কালা শুধু দিয়ে ছিল প্রাণ।


আর তার গান 

         শুনে খুশী হয়ে

              ফুটে ছিল পৃথিবীর গাছে যত ফুল।


 তাই দেখে বিলকুল 

              খুশী হয়ে বেঁচে ছিল 

                             এ' জগতে যত প্রাণীকুল।


         

----------------------------------------


কবিতা


হাইপ-দুই                     

শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°


দুর্বার গতি

                   সহজেই অতি

                                    যায় না তো ধরা যাকে

সে-ই আলোড়ন 

                    তুলে ত্রি -ভুবন 

                                        মনটাকে ধরে রাখে।

দু হাতের যাদু

                       নিঙরায় মধু

                                       মৌ চাকে যত থাকে

তবু ভেবে দেখ

                        মনে ধরে সে কি

                                 যাকে দূরে ঠেলে রাখে?


----------------------------------------------


কবিতা


হাইপ-তিন                      

শংকর ব্রহ্ম

•••••••••••••••••••••••••


                                            মানুষ তো নয়

কৃত্রিম-মানুষে যাচ্ছে ভরে দেশ ,

                 নেই তাতে ক্ষোভ,নেই তাতে ভয়

সবাই আমরা সুখেই আছি বেশ।


জীবনের এ গতির, মানুষের প্রকৃতির

                                           দেখ যদি ছবি

শব্দ নিয়ে কারবার,সে কথাই বারবার 

                         বলে ছিল কোন এক কবি।


--------------------------------------+


কবিতা


হাইপ-চার      .  

শংকর ব্রহ্ম

••••••••••••••••••••        


চাঁদের মধ্যে তোমায় দেখে

                                         ঘুম পেয়েছে রাতে

জান কি তুমি দুধের মধ্যে

                                     মধু দিতে নেই ভাতে?


চাঁদ না তুমি, কে যে আপন?

                                         ভাবতে গিয়ে দেখি

তুমিই থাক চাঁদের মধ্যে ,    চাঁদকে কখন দেখি?


দুধের মধ্যে মধু দিতে নেই, তবে কি,

                   মধুর মধ্যে দুধ দেওয়া যায় নাকি?


------------------------------------


কবিতা


হাইপ-পাঁচ

শংকর ব্রহ্ম

`````````````´´´´´´´´´´´

ক্ষুদ্র আকাশ  মহৎ হৃদয়

         আমার কি আর করে না ভয় ,

তোমার কাছে পৌঁছে যেতে

                              রাত - বেরাতে  ?


ভাবছ বুঝি এর মানে কি  ?

           মানের কথা কেউ মানে কি

মনই জানে কোন সে মানে  

               গভীর ভাবে চাপা পড়ে

                   থাকে গোপন সংগোপনে।


কৃষ্ণ রাধা থাকে কেন 

               কেবল শুধু বৃন্দাবনে

                                  কেউ কি জানে?

খোঁজে কি তার গভীর মানে? 


ভালবাসার হয় কি মানে

                    তবু ভাল বাসাবাসি কত?

অন্যকে ভালবাসার ছলে

                 নিজেকে ভালবাসি না তো? 


সারাটা দিন চোখ পাকিয়ে

                     কটু কথায় ঘিরে রাখি ,

তুমি যখন ঘুমিয়ে পড় 

                    মনের সুখ আদর করি

এর মানে কি  ?

সব কিছুর তো হয় না মানে , 

                                   হৃদয় জানে।


------------------------------------------


কবিতা


হাইপ-ছয়

লেখক  ••• শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°


এখানে আমের বাগান ছিল

                          আর আজ সাজানো শহর

মাথা ঘুরে যেতে পারে

                              দেখ যদি আলোর বহর।


এখন কাকের ডাকে ঝালাপালা কান

আগে কোকিলের তানে ভরে যেত প্রাণ।


যত ছিল অনুতাপ , পুড়ে সব এখন ভাপ

জীবনে আনন্দ নেই কোন,

                                 শুধু বোকা বোকা চাপ।


এখন আম খেতে ইচ্ছে হলে , 

                                  আমাদের ছেলে মেয়ে

শহরের দোকানের দিকে থাকে সকরুণ চেয়ে

এখানে পুড়িয়ে দিয়ে বুড়ি সব লতা গুল্ম গাছ

কারা শুধু খুঁজে ফেরে নিরানন্দ জীবনের আঁচ।


------------------------------------------


কবিতা


হাইপ-সাত

শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°


বনের মধ্যে চাইলে আগুন, ধরাবে বলে বিড়ি

হঠাৎ, জ্বলে উঠল দাবানল, 

                               কেন হল যে এমন ছিড়ি?

বল এখন কোথায় যে পাই

                                         একটুখানি জল?

আর কিছু নেই,

                      থাকার মধ্যে প্রেম শুধু সম্বল।


প্রেমের নামেও করছি ছল

                                  এখন বল উপায় কি?

দিনের আলোয় দু চোখ মেলি

                               তবু কেন আঁধার দেখি। 


নীল আকাশে চাঁদ খুঁজেছি

                                  ছিল না চাঁদ ওখানে 

চাঁদ ছিল যে আঁটকে তোমার 

                                  বুকের মধ্যে গোপনে।


------------------------------------------


কবিতা


হাইপ-আট

শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°


রাজার দু কান

                   গাঁজার দোকান

                                   গাঁজা টেনে যান ,

গাধার দু কান

                    টানতে কি চান

                                    রাজার দু কান ?

বাবার প্রসাদ

                     খাবার প্রাসাদ

                                  কিছু খেতে চান ?

করেননি চান ?

                      বাড়ি চলে যান

                                       দিয়ে দুই টান ?


গাঁজা টেনে 

              রাজা সেজে 

                        প্রাসাদে এবার

                                            ফিরে যান,

মানে মানে 

               জোড় করে

                            কারও কান টেনে ধরে

                                                মনে মনে।


 ঘোরে পড়ে , 

                ঘুরে ফিরে , 

                          বাড়ি যান নিজে ফিরে

  গাঁজা নয় ,  

        গ্যাঁজা নয়

        শুধু এক গাঁজাখুরি গল্প মনে করে।


---------------------------------------


কবিতা


হাইপ-নয়

শংকর ব্রহ্ম

°°°°°°°°°°°°°°°°°°


খেলার ছলে

                   নদীর জলে

                                    ভাসিয়ে ছিলাম ভেলা

আমায় নিয়ে

                   কাটিয়ে দেবে

                                          সে কি সারাবেলা

বুঝব কেমন করে ?


ভেলা এখন

                      ফিসফিসিয়ে 

                                          মনের কথা বলে

ডুবি যদি একলা আমি

                  ডুবব তোমায় নিয়ে

                                      গহীন কালো জলে

যদি প্রাণ না থাকে ধড়ে,

                   তবু শান্তি পাব মনে  

                                       তোমার সঙ্গে মরে।



------------------------------------------


কবিতা


হাইপ- দশ

শংকর ব্রহ্ম

~~~~~~~


খুশি যদি বাসি হয়

               তবে সেটা ভাল নয়

তবে সেটা ভাবনার

             আনন্দ কে কে নেবে

নিয়ে যাও ভাগ তার।


চোখে চোখে কথা হয়

              ঠোঁটে হয় বেশি তার

এই কথা বলবার

              আছে বুঝি দরকার? 

আনন্দ কিসে বেশি

        চোখে নাকি ঠোঁটে তার?


-----------------------------------------


কবিতা


হাইপ-এগারো

শংকর ব্রহ্ম

--------------------------

দুপুর উদাস হয়ে চেয়ে ছিল পথে,

কালো ভুসো মেঘ এসে নিতে চায় রথে,

তখনও ছিল না কেউ করার বারণ,

বিকেল এসে হয়ে পরে বাঁধার কারণ,

মেঘও নয় দুপুরকে ছাড়বার পাত্র

দুপুর উড়িয়ে নিয়ে যায়, এইমাত্র।


-------------------------------------


কবিতা 


হাইপ - বারো

শংকর ব্রহ্ম

------------------

        

সহজে যা যায় না পাওয়া

                  সহজে কি তা হারিয়ে যায়? 

হারিয়ে গেলে হঠাৎ তাও

                 মন কি তাকে সত্যি তাড়ায়? 


দিন রাত্রি স্বপ্নচারী

                   বুকের ভিতর ধুধুূল পোকা, 

এখন আমি বুঝতে পারি

                    সবার মধ্যে আমিই বোকা। 


কষ্টে পাওয়া তুচ্ছ ধন 

                      হারিয়ে গেলেও হারায় না, 

মন যে তাকে তাড়ায় না

                             বুকে থাকে বিলক্ষণ।

Post a Comment